ঈশ্বরদীতে প্রায় ৮ লাখ টাকার অবৈধ সিগারেটসহ দু’ব্যক্তি গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিনিধি,
রবিবার দুপুরে থানা পুলিশ ঈশ^রদীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রায় ৮ লাখ টাকা মূল্যের নকল ব্যান্ড রোল লাগানো অবৈধ সিগারেটসহ দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো মনমোহন সিগারেট কোম্পানীর দাশুড়িয়াস্থ এসআর (ষ্টোর কিপার) রানা ও ছিলিমপুর বাজারের শাজাহান স্টোরের সত্বাধিকারী শাজাহান আলী।
ঈশ^রদী থানা পুলিশ ও ব্রিটিশ ট্যোবাকো কোম্পানীর দায়িত্বশীল সূত্রে জানা গেছে, অধিক লাভের আশায় ঈশ^রদীর বিভিন্ন এলাকায় কতিপয় মৌসুমি ব্যবসায়ীরা দীর্ঘদিন ধরে প্রচুর পরিমাণে ডার্বি সিগারেট অবৈধভাবে মজুদ করে আসছিল। ক্রেতাদের স্বার্থে ও গুণগত মান ঠিক রাখতে কোম্পানী বদ্ধ পরিকর থাকায় অবৈধ মজুদের বিষয়টি তদন্তের জন্য সোর্স নিয়োগ করা হয়।
নিয়োগকৃত সোর্সরা বিভিন্ন বাজারে গোপনে অনুসন্ধান শুরু করে অবৈধ মজুদের বিষয়টি নিশ্চিত হয়। পরে ব্রিটিশ ট্যোবাকো কোম্পানীর পক্ষ থেকে পাবনা জেলা পুলিশসহ ঈশ^রদী থানায় অভিযোগ করা হয়।
অভিযোগ পাওয়ার পর গোপন ভাবে পুলিশী তদন্তের পর ঐদিন ঈশ^রদী থানা পুলিশ ছিলিমপুর, দাশুড়িয়া ও নতুন হাট বাজারে অভিযান চালিয়ে ৬ লাখ ২৩ হাজার ২’শ টাকা মূল্যের ১ লাখ ৬০ হাজার ডার্বি সিগারেট ও ১ লাখ ৬৮ হাজার টাকা মূল্যের ৮৪ হাজার মনমোহন গোল্ডের শলাকা উদ্ধার করা হয়।
সূত্রমতে, তারা ডার্বি সিগারেট ও নকল ব্যান্ড রোল লাগানো মনমোহন গোল্ড সিগারেট অনিয়ম তান্ত্রিক ভাবে মজুদ করে বেশী দামে বিক্রি করে আসছিল। এ কারণে বাজারে সিগারেটের কৃত্রিম সংকট, গুণগত মান নষ্ট ও ক্রেতাদের মধ্যে অসন্তোষ শুরু হওয়ায় অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এদিকে পুলিশের অভিযান চলাকালে উৎসুক জনতার ভিড় জমে। পরবর্তীতে এ ধরনের সিগারেট মজুদ ও নকল ব্যান্ডরোল ব্যবহার করে বাজারজাত করার সাথে জড়িত প্রমানণ হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঈশ^রদী থানার অফিসার ইনচার্জ নাসীর উদ্দীন শেখ জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *