এবার হার্ডিঞ্জ ব্রিজে মিলল ভয়ঙ্কর রাসেল ভাইপার

একদিকে করোনা ভাইরাস মহামারি অন্যদিকে বর্ষা মৌসুমের শুরু না হতেই পাবনায় নতুন করে সাপের উপদ্রব দেখা দিয়েছে। দেখা মিলছে অতি বিষাক্ত দুর্লভ প্রজাতির সাপ রাসেল ভাইপারের। এই সাপ কামড় দিলে অধিকাংশ মানুষই মারা যায়। তবে বাঁচলেও দংশিত স্থানে পচন ধরে।

এদিকে আবার ঈশ্বরদীর পাকশী ইউনিয়নের হার্ডিঞ্জ ব্রিজের নিচে দেখা মিলল বিষধর এই সাপের। বুধবার (২৪ জুন) বিকেলে সাপটি দেখা মাত্রই পিটিয়ে মেওে ফেলেছেন স্থানীয় কয়েকজন কৃষক।

জিয়াউল হক নামের স্থানীয় বাসিন্দা জানান, পদ্মার পানিতে ভেসে আসা সাপটি হার্ডিঞ্জ ব্রিজের সংলগ্ন জমিতে দেখতে পান দুজন কৃষক। সাপটিকে কাছে থেকে দেখতে গিয়ে তারা দেখেন এটি রাসেল ভাইপার। তখন তারা ভয় পেয়ে সাপটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ৩০ মে রাতে ঈশ্বরদী উপজেলার চরাঞ্চলে এক নারীকে সাপে কামড় দেয়। ওই নারীকে নিয়ে যাওয়া হয় পাবনা জেনারেল হাসপাতালে। সাপটিকেও মেরে হাসপাতালে নিয়ে যান তারা। তিন দিন পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যান ওই নারী।

চিকিৎসকরা জানান, সাপটি কামড় দিয়ে পুরোপুরি বিষ ঢালতে না পারায় প্রাণে বেঁচে গিয়েছেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *