নাটোরের বাগাতিপাড়ায় বাল্যবিয়ের দেওয়ার চেষ্টার দায়ে কনের বাবাকে জরিমানা

নাটোর প্রতিনিধি.
নাটোরের বাগাতিপাড়ায় লোকসমাগম করে বাল্যবিয়ে দেয়ার চেষ্টার দায়ে কনের বাবাকে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। বাগাতিপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রিয়াংকা দেবী পাল এর আদালত এ দন্ডাদেশ দেন। সোমবার বিকেলে উপজেলার বারইপাড়া মহল্লায় এ বিবাহের ঘটনা ঘটে। দন্ডিত কনের বাবা মতিউর রহমান বারইপাড়া মহল্লার বাসিন্দা।
ইউএনও কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে। বর্তমানে মিম একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি হবে। মীম খাতুনের বিয়ে বাবা মতিউর রহমান ঠিক করেন। সোমবার বারইপাড়া মহল্লায় তার আত্মীয় গোলাম রসূলের বাড়িতে এ বিয়ের আয়োজন চলছিল। করোনা পরিস্থিতিতে কোন স্বাস্থ্য বিধি না মেনে সামাজিক অনুষ্ঠান এবং বাল্যবিয়ের আয়োজন করার খবর পেয়ে ইউএনও প্রিয়াংকা দেবী পাল মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাবিবা খাতুনকে নিয়ে বিয়ের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করে । সেসময় জনসমাগম করে বাল্যবিয়ে দেওয়ার চেষ্টায় কনের বাবা মতিউরকে ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে এক মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেন। পরে নগদ অর্থ পরিশোধ করলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয় এবং বাল্য বিয়ে বন্ধ করা হয়। ইউএনও প্রিয়াংকা দেবী পাল বলেন, একদিকে বাল্য বিয়ে অপর দিকে করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে সামাজিক অনুষ্ঠান করায় দন্ডাদেশ দেয়া হয়েছে।

মোঃ রাশেদুল ইসলাম
নাটোর
তাং-২৯-০৬-২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *