নাটোরের বড়াইগ্রামে স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় আটক ১

নাটোর প্রতিনিধি:
নাটোরের বড়াইগ্রামে মাঠের ক্ষেতে শাক তুলতে গিয়ে অষ্টম শ্রেণীর এক স্কুল ছাত্রী (১৫) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। রবিবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনায় স্কুল ছাত্রীর মা বাদী হয়ে অভিযুক্ত রফিক সেখ (৩৫) ও সিদ্দিকুর রহমান (৩৭) নামে দুইজনকে আসামী করে বড়াইগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করে। রফিক উপজেলার বনপাড়া পৌর-শহরের বেড়পাড়া মহল্লার বাদশা মিয়ার ছেলে ও সিদ্দিকুর একই এলাকার মান্নান প্রামাণিকের ছেলে। পুলিশ,আজ সোমবার সকালে সিদ্দিকুরকে আটক করে নাটোর জেল হাজতে প্রেরণ করেছে এবং প্রধান আসামী রফিককে আটকের জন্য বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশী চালাচ্ছে। ধর্ষণের শিকার হওয়া মেয়েটি বনপাড়া বেগম রোকেয়া সরকারী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।
বড়াইগ্রাম থানার এসআই সামসুল ইসলাম জানান, গত শুক্রবার বিকেলে ওই স্কুলছাত্রী বাড়ির অদূরে একটি ক্ষেতে শাক তুলতে যায়। এসময় অভিযুক্ত রফিক ও সহযোগী সিদ্দিকুর মেয়েটির মুখ চেপে ধরে পাশ্ববর্তী ভূট্টা ক্ষেতের ভিতরে নিয়ে যায় এবং রফিক তাকে জোর করে ধর্ষণ করে। পরবর্তীতে সিদ্দিকুর ধর্ষণ করতে উদ্যত হলে মেয়েটির চিৎকার ও কান্নাকাটি করতে থাকলে তারা উভয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়।
থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলিপ কুমার দাস জানান, নির্যাতিতার মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ধর্ষণের শিকার হওয়া মেয়েটির ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামী একজনকে আটক করা হয়েছে এবং অপর আসামীকে আটক করতে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে।
#
মোঃ রাশেদুল ইসলাম
নাটোর
২২.০৬.২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *