নাটোরে “তিন যমজ সন্তান নিয়ে অর্ধাহারে অনাহারে দিন কাটছে আদিবাসী মা বৃষ্টি পাহানের

—–কেউ কি নেই তিন যমজ শিশুর জন্য শিশুখাদ্য দেবে—
নাটোর প্রতিনিধি।।
সরকার বলে শিশুভাতা দিচ্ছে। হামার তিন শিশু যমজ বাচ্চার ভাতার জন্য এমপি, মেয়র, কাউন্সিলর কত জনের কাছে গেলাম কেউ কিছু দিলো না বাবু। হামার বাবুরা না খেয়ে থাকবে।

কথাগুলো বলছিলেন, নাটোর শহরের হাজরা নাটোর এলাকার আদিবাসী পল্লীর দিনমজুর কাশিনাথ পাহানের স্ত্রী বৃষ্টি পাহান।। ২০১৯ সালের ২৬ এপ্রিল সিজারের মাধ্যমে বৃষ্টি পাহান তিন ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। বাচ্চাদের নাম রাখা হয় কর্ণ,কেশব, কৈশিক। একই রকম চেহারার তিন শিশুকে নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে আদিবাসি পরিবারটি। বাচ্চাদের বাজার থেকে দুধ কিনে খাওয়াতে হয়। করোনার লকডাউনে তাদের কেউ সাহায্য করেনি। তিন সন্তানের জনক কাশিনাথ পাহান মানুষের জমিতে ক্ষেতমজুরের কাজ করে যা পান তা দিয়ে পাঁচ জনের সংসার খেয়ে না খেয়ে দিনানিপাত করছে।
আমরা কি পারিনা, অবুঝ তিনশিশুর মুখে সামান্য খাবার তুলে দিতে। আমরা কি পারিনা তাদের দুধের ব্যবস্থা করে দিতে।
সবার কাছে মানবিক আবেদন আদিবাসী তিন শিশুর জন্য সামান্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।

মোঃ রাশেদুল ইসলাম
নাটোর
২৯-০৬-২০২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *