পাবনায় পুনরায় চালু হচ্ছে বিমানবন্দর

পাবনার ঈশ্বরদী বিমানবন্দরটি পুনরায় চালু করা হবে বলে জাতীয় সংসদে জানিয়েছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মাহবুব আলী।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে পাবনা-১ (সাঁথিয়া-বেড়া) আসনের সংসদ সদস্য শামসুল হক টুকুর প্রশ্নের জবাবে তিনি এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, আকাশপথে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সঙ্গে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, মোংলা ইপিজেড ও মোংলা ইকোনোমিক জোনের কার্যকারিতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নতুন একটি অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দর ‘খানজাহান আলী বিমানবন্দর’ নামে নির্মাণের পরিকল্পনা রয়েছে। এ ছাড়াও জমি অধিগ্রহণের নানা প্রক্রিয়া শেষে ঈশ্বরদী বিমানবন্দরটি পুনরায় চালুর পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

উইকিপিডিয়ার তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশের প্রাচীনতম এই বিমানবন্দর ১৯৪০-১৯৪৫ সালের মাঝা মাঝি সময়ে স্থাপিত হয়। ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিমানবন্দরের কিছুদিন পরপরই এটি স্থাপিত হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় এই বিমানবন্দরটি হিজলি বেজ এলাকা নামে পরিচিত ছিল। ১৯৪৫ সালের ৮-২৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বিমানবাহিনীর ২০তম বোমারুবাহিনী এই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছিল।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত নিয়মিত এই বিমানবন্দরে ফ্লাইট পরিচালনা করত। এরপর বিমানবন্দরটি বন্ধ হয়ে যায়।

দীর্ঘ ১৭ বছর বন্ধ থাকার পর ২০১৩ সালের ১৮ নভেম্বর ঈশ্বরদী বিমানবন্দরে বিমান চলাচল পুনরায় চালু হয়। ওইদিন বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ এই বিমানবন্দর থেকে ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করে।

কিন্তু ৬ মাস ১১ দিন চালু থাকার পর ২০১৪ সালের ২৯ মে আবার বন্ধ হয়ে যায় বিমানবন্দরটি। গত পাঁচ বছরেও এই বিমানবন্দরে ওঠা-নামা করেনি কোনো বিমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *