বঙ্গবন্ধুর প্রচেষ্ঠায়ই শিক্ষা পৌঁছে যায় মানুষের দোরগোড়ায়- এমপি প্রিন্স

দৈনিক পাবনা

 

বাংলাদেশ স্বাধীনতা অর্জনের পর পরই শিক্ষাক্ষেত্রে সংস্কারে এগিয়ে আসেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৭৩ সালে দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো জাতীয় করন করেন।এর ফলে শিক্ষা ব্যবস্থার আমূল পরিবর্তন হয়ে যায়।

শনিবার দুপুরে পাবনা সদর উপজেলার খতিব আব্দুল জাহিদ স্কুল এন্ড কলেজে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী (মুজিববর্ষ) উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু’র ম্যুরাল উদ্বোধন কালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন,বঙ্গবন্ধুর প্রচেষ্ঠায়ই শিক্ষা পৌঁছে যায় মানুষের দোরগোড়ায় এবং প্রাথমিক শিক্ষকগণের আর্থিক দৈন্যদশার উন্নয়ন ঘটেছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু আদর্শকে ধারণ ও লালন করে তাঁর সুযোগ্য কন্যা গণতন্ত্রের মানষ কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা অসংখ্য বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন।

এমপি প্রিন্স আরো বলেন,সরকার গৃহীত শতভাগ শিক্ষার্থীর জন্য উপবৃত্তি কার্যক্রম সাথে অভিভাবকদের বিনামূল্যে মোবাইল সিমের ব্যবস্থা, দারিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং পর্যায়ক্রমে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মিড-ডে মিল প্রকল্প, ২০২০ সাল হতে বাংলাদেশে প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পোশাক ও জুতার জন্য বছরের প্রথমে দিনে নগদ ২০০০/- টাকায় প্রদানের পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে সরকার।

এসময় প্রতিষ্ঠানটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি খতিব আব্দুল জাহিদ মুকুল, ভাঁড়ারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু সাঈদ খান, জেলা আওয়ামী লীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক সরদার মিঠু আহমেদ, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ রাসেল আলী মাসুদ, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক হিরোক হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগ নেতা কামরুজ্জামান রকি,ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি বেলাল হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সরদার স্বপন আহমেদ সহ প্রতিষ্ঠানটির সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *