বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশী নিহত : সীমান্তে উত্তেজনা

the daily pabna

 

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের গুলিতে অমেদুল হোসেন (২৮) নামে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। রবিবার (১৮ অক্টোবর) ভোর ৪টার দিকে চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর সীমান্তে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

নিহত অমেদুল হোসেন দামুড়হুদার ঠাকুরপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনার পর ওই সীমান্তে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এলাকাবাসী জানান, দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামের অমেদুল হোসেনসহ ৫-৬ জন গরু ব্যবসায়ী রোববার ভোর ৪টার দিকে ঠাকুরপুর সীমান্তের ৮৯নং মেইন পিলারের কাছ দিয়ে সীমান্ত পার হয়ে ভারতে প্রবেশ করছিলেন।
এ সময় ভারতের হুদাপাড়া ক্যাম্পের টহলরত বিএসএফ সদস্যরা তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। অন্যরা পালিয়ে এলেও গুলিবিদ্ধ হয়ে অমেদুল হোসেন ঘটনাস্থলে নিহত হন। বর্তমানে তার লাশ ভারতের একশ গজ অভ্যন্তরে হুদাপাড়া সীমান্তে পড়ে আছে।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ খালেকুজ্জান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ওমেদুল পেশায় রাজমিস্ত্রী ছিলেন। তিনি ভারতে গরু আনতে গিয়েছিলেন। রবিবার সকালে তার পরিবার অভিযোগ করলে আমরা বিএসএফের সাথে কথা বলে ঘটনার সত্যতা পাই। এ ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে ও নিহতের লাশ ফেরত চেয়ে বিএসএফের কাছে চিঠি দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *