লালপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

লালপুর(নাটোর)সংবাদদাতা:
নাটোরের লালপুর উপজেলার চংধুপইল ইউনিয়নের কামারহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মোছা: হামিদা বেগমের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। নীতিমালা অবমাননা করে সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট কমিটি গঠন করার অপচেষ্টায় লিপ্ত প্রধান শিক্ষিকার ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে এই সমস্যার প্রতিকার চেয়েছেন অভিভাবকরা। অভিভাবক ও গ্রামবাসীদের স্বাক্ষর সম্বলিত এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগপত্র লালপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর জমা দেয়া হয়েছে।

অভিযোগপত্রে স্বাক্ষরকারী অভিভাবক বকুল হোসেন জানান, ‌‘কামারহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা মোছা: হামিদা বেগম ম্যানেজিং কমিটি গঠনের নীতিমালা অবমাননা করে সিনিয়র ম্যানেজমেন্ট কমিটি(এসএমসি) গঠন করে প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে জমা দেন। সেই কমিটিতে অভিভাবক না হওয়া সত্ত্বেও প্রধান শিক্ষিকার স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলকে সভাপতি হিসেবে উল্লেখ করা হয়। সদস্য ও সভাপতি নির্বাচনের এই কাজটি প্রধান শিক্ষিকা তার বাড়িতে বসে একা একা করেছেন যা ম্যানেজিং কমিটি গঠনের নীতিমালার পরিপন্থী।’

বকুল হোসেন আরও বলেন, ‘প্রধান শিক্ষিকা অভিভাবকদের কাছ থেকে মিথ্যা কথা বলে স্বাক্ষর নিয়েছেন এবং জাল স্বাক্ষর করেছেন। যেহেতু তার বাড়ি একই গ্রামে সেহেতু গ্রামের সাধারণ অভিভাবকরা তাকে কিছু বলতে গেলে গ্রামের মধ্যে বিশৃংখলা সৃষ্টি করছেন প্রধান শিক্ষিকা হামিদা বেগম।’

এ ব্যাপারে লালপুর উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার নজরুল ইসলাম বলেন, কামারহাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটি গঠনে অনিয়মের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি যাচাই বাছাই ও প্রয়োজনীয় খোঁজখবর নিয়ে পরবর্তীতে ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কোমলমতী শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটি গঠন নিয়ে এমন অনিয়মের নিন্দা জানিয়ে ও লিখিত অভিযোগের তদন্তসাপেক্ষে সুষ্ঠু ভাবে স্কুল পরিচালনা করার লক্ষ্যে নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে একটি এসএমসি গঠনের সুযোগ সৃষ্টি করার ব্যাপারে আশাবাদী অভিভাবক ও কামারহাটি গ্রামবাসী। সেইসাথে অসৎ উপায় অবলম্বনের জন্য প্রধান শিক্ষিকা হামিদা বেগমের ব্যাপারেও বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী তাদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *