সিরাজগঞ্জে ফার্মেসীগুলোতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান।

এসএম হাসান রেজা
সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

সিরাজগঞ্জে নিষিদ্ধ ঔষধ পাওয়ায় ৪ লক্ষ জরিমানা ।
সিরাজগঞ্জ শহরের বাজার স্টেশন এবং২খলিফা পট্টির বিভিন্ন ঔষধের দোকানে অভিযান পরিচালনা করে ৪ লক্ষ ১ হাজার জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।শনিবার ৮ আগষ্ট সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল আহমেদের
নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।
অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করেন ড্রাগ সুপার জনাব আহসান উল্লাহ এবং RAB-12 এর কোম্পানি কমান্ডার এ এস পি মিরাজ এর নির্দেশে তার দল এবং জেলা আনসার বেটলিয়ান সদস্যবৃন্দ।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে যে,গোপন তথ্যের ভিত্তিতে ঔষধ ফার্মেসীগুলোতে এ অভিযান চালানো হয়।পালর্স এন্ড সন্স,মদিনা ফার্মেসী সহ আরও চারটি(৪) ফার্মেসীতে এ অভিযান চলে।পালর্স এন্ড সন্স নিষিদ্ধ ঔষধ যা মাদক হিসেবে তফসিলভুক্ত টাপেন্টাডলসহ নেশা জাতীয় ঔষধ,ফিজিশিয়ান সেম্পল,মেয়াদোত্তীর্ণ ঔষধ,বিদেশী ঔষধ রাখার দায়ে পালর্স এন্ড সন্স এর মালিক প্রদীপ
২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড প্রদান করা হয়।পালর্স এন্ড সন্স কে আগেও জরিমানা করা হয়েছিলো এবং সতর্ক করা হয়েছে।তবুও ফার্মেসীর মালিক নেশা জাতীয় ঔষধ বিক্রি করে আসছিলো।
মদিনা ফার্মেসীর মালিক শাহীন আলমকে ফিজিশিয়ান সেম্পল যার আনুমানিক মূল্য ৭থেকে ৮ লক্ষ টাকা, রাখার দায়ে এবং মেয়াদউত্তীর্ণ ঔষধ,নেশাজাতীয় ঔষধ বিক্রির দায়ে তাকে ১ লক্ষ ৪০ হাজার জরিমানা করা হয়।উল্লেখ্য ফার্মেসীকে একই অভিযোগ আগেও জরিমানা করে সতর্ক করা হয়েছিলো।ড্রাগস এক্ট ১৯৪০ এর ১৮ (ক,খ,গ) ধারা লঙ্ঘন করায় ২৭ ধারায় অর্থদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

এছাড়াও ভোক্ত অধিকার সংরক্ষন আইন ২০০৯ এর ৫৩ ধারায় দুটি ফার্মেসীতে ৬ হাজার জরিমানা করা হয়।ফিজিশিয়ান সেম্পল এবং ঔষধের দামে টেন্পারিং করার দায়ে
সজিব মেডিক্যাল হলকে ৫ হাজার টাকা সর্বমোট ৪ লক্ষ ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ।সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক ড. ফারুক আহাম্মদ এর নির্দেশ এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তোফাজ্জল হোসেনের সার্বিক তত্তাবধানে এ অভিযান পরিচালনা করা হয় সহকারী কমিশনার ফয়সাল আহমেদ জানান । জনগনের অধিকার ও স্বাস্থ্য রক্ষায় জেলা প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

তাং ০৮-০৮-২০

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *