পাবনায় সাড়া ফেলেছে তিন বন্ধুর ‘পথ পাঠাগার’

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার কাশীনাথপুরে স্থাপিত ‘পথ পাঠাগার’ ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। প্রতিষ্ঠার ১৫ দিনেই প্রায় হাজারটি বই জমা হয়েছে এ পাঠাগারে। এখান থেকে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন বয়সী মানুষ তাদের পছন্দের বই বাড়িতে নিয়ে পড়ার সুযোগ পাচ্ছেন। আশপাশের দোকান মালিকরাও অবসরে পাঠাগার থেকে বই নিয়ে পড়ছেন। প্রতিদিন ৫০-৬০ জন করে পথচারী নিজেদের পছন্দের বই পাঠাগার থেকে নিয়ে যাচ্ছেন এবং পড়া শেষে আবার ফেরত দিয়েও যাচ্ছেন।

ব্যতিক্রমধর্মী এ পাঠাগারের মূল উদ্যোক্তা কবি ও প্রভাষক আলাউল হোসেন। তার দুই সহযোগী বন্ধু হলেন- প্রভাষক সালাউদ্দিন আহমেদ এবং শিক্ষক ফজলুর রহমান। মূলত বই পাড়ায় অভ্যাস গড়ে তোলার উদ্দেশ্যেই তাদের এ চেষ্টা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২৩ জানুয়ারি থেকে এ পথ পাঠাগারের যাত্রা শুরু হয়। ৩০ হাজার টাকা ব্যয়ে রাস্তার পাশে একটি ভবনের দেওয়ালে শেল্ফ তৈরি করা হয়। ঝড়-বৃষ্টি হলে যাতে পানি না ঢোকে এজন্য মোটা থাইগ্লাস দেওয়া হয়েছে সামনের দিকে। এর অর্থায়ন করেছে কাশীনাথপুর এলাকার স্কাইলার্ক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল।

 

স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে পথ পাঠাগারটি সার্বক্ষণিক দেখাশোনার দায়িত্ব পালন করছেন পার্শ্ববর্তী একটি দোকানের মালিক সুরুজ আলী ও একটি দোকানের ম্যানেজার আবির মাহমুদ। এছাড়া আশপাশে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া কিছু শিক্ষার্থীও স্বেচ্ছাসেবকের কাজ করে যাচ্ছেন।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পাঠাগারটি সবার জন্য খোলা থাকে। সকালে খোলা ও সন্ধ্যার পর পাঠাগার বন্ধ করে দেন স্বেচ্ছাসেবকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *