ঈশ্বরদীতে যুবলীগের অফিস ভাঙচুর এর অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলা পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম লিটনের অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবেদ হাসান শৈশবের বিরুদ্ধে।

গত শনিবার ( ২৪ জুন) সন্ধায় দিকে রেলগেট কড়ইতলা পৌর যুবলীগের অফিসে এই ঘটনাটি ঘটে।

পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম জানান, শনিবার আ.লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা নিয়ে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবেদ হাসান শৈশবের সাথে মতবিরোধের জেরে সন্ধ্যায় মোটর সাইকেল যোগে ১৫/২০ সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার অফিস ভাঙচুর করেছে এবং বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর সহ অফিসের চেয়ার টেবিল ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করেছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিও জানান।

এবিষয়ে অভিযুক্ত পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবেদ হাসান শৈশব বলেন, এই ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেছে বলে আমার জানা নেই। এখন কেন সে আমার নামে এইসব অভিযোগ করছেন আমার জানা নেই। সেই ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ যদি সে করতে‌ পারে তাহলে যেকোনো শাস্তি মেনে নেব আমি। আমি রাজনৈতিকভাবে বেড়ে উঠছি সেই জন্যই তিনি আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য এইসব অভিযোগ করছেন।

এ বিষয়ে পাবনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান সবুজ মুঠোফোনে জানান, এখনো এ ধরনের কোনো অভিযোগ আমরা পাইনি। তবে এ ধরনের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করার কোন সুযোগ নেই। বিষয়টি তদন্ত করে সত্যতা পাওয়া গেলে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এবিষয়ে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি পেলে ব্যবস্থা