পাবনায় মালয়েশিয়া ফেরত ঋণের কারনে আত্মহত্যা করেছে এক যুবক

সাঁথিয়ায় মালয়েশিয়া প্রবাসী জাহিদুল ইসলাম (২৪) নামের এক যুবক দেশে এসে ঋণের কারণে হতাশাগ্রস্ত হয়ে আত্মহত্যা করেছে। তিনি ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের কৃষক শুকচাঁদ আলীর ছেলে। বুধবার ভোর রাতে বাড়ির পাশে আম গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস নিয়ে তিনি আত্মহত্যা করে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, জাহিদুল প্রায় এক বছর আগে বিভিন্নজনের কাছ থেকে টাকা পয়সা ঋণ করে মালয়েশিয়া গিয়েছিল। সেখানে প্রায় তিন মাস আগে মলম পার্টির খপ্পরে পড়ে অজ্ঞান হয়ে টাকা পয়সা হারিয়ে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে যায়। এরপর সেখান থেকে গত মার্চ মাসের শেষের দিকে বাড়ি চলে আসে। আসার পর বেশিরভাগ সময় চুপচাপ থাকতো কারও সঙ্গে ঠিকমতো কথা বলত না। মানুষের ঋণের টাকা শোধ করতে না পারায় এবং তার আবার বিদেশ যাওয়ার টাকা না থাকায় সব সময় হতাশা বোধ ও দুশ্চিন্তা করত।

মঙ্গলবার রাতে সবার সঙ্গে খাবার খেয়ে রাত ১১টার দিকে বাড়ি থেকে বের হয়। সকালে বাড়িতে না দেখে বাড়ির লোকজন জাহিদুলকে খুঁজতে থাকে। খোঁজার এক পর্যায়ে সকাল ৬টার দিকে স্বজনরা দেখতে পান বাড়ির পাশে আম গাছের সঙ্গে ফাঁস নিয়ে ঝুলে আছে। এ ঘটনায় থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে।